নবনিযুক্ত শিক্ষকদের প্রশিক্ষণের আয়োজন করেছিলো ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ। ৩ ও ৪মার্চ দুইদিনব্যাপী নবনিযুক্ত শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে  বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসের ১১৭ নম্বর কক্ষে। প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে সকাল ১১টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত।

 

স্পিকার ছিলেন ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মকবুল আহমেদ খান, রেজিস্ট্রার আ.ফ. ম গোলাম হোসেন, প্রক্টর, ড. কাজী বজলুর রহমান, ট্রেজারার মো. মোশারফ হোসাইন সরকার, ব্যবসায় অনুষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. ফারজানা আলম, কম্পিউটার সায়েন্স অ্যাণ্ড ইঞ্জিনিয়ারিং-এর চেয়ারম্যান সহযোগী অধ্যাপক ওবাইদুর রহমান, ম্যানেজার, কো-অর্ডিনেশন (ক্লাস্টার-১) নাসিমা আক্তার,ম্যানেজার, কো-অর্ডিনেশন (ক্লাস্টার-২) মো. মোস্তাফিজুর রহমান, ডেপুটি ডাইরেক্টর ফ্যাকাল্টি ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড ইভ্যালুয়েশন মাহমুদুল হাসান চৌধুরী। আমন্ত্রিত অতিথি স্পিকার হিসেবে অংশ নিয়েছিলেন বুয়েটের প্রাক্তণ অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ।

 

৩মার্চ স্বাগত ও শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন ড. ফারজানা আলম।

তিনি বলেন, শিক্ষকতা একটি মহৎ পেশা। এ পেশায় থেকে জাতি গঠনে সরাসরি ভূমিকা রাখা সম্ভব। আপনারা যারা শিক্ষকতাকে পেশা হিসেবে গ্রহণ করেছেন প্রত্যেককে স্বাগত জানাচ্ছি।

 

শিক্ষকদের ভূমিকা কেমন হওয়া উচিত সে বিষয়ে বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য। শিক্ষকদেরকে নিয়মিত জ্ঞান চর্চার সঙ্গে থাকার পরামর্শ দেন এবং অর্জিত জ্ঞান শিক্ষার্থীদের মধ্যে স্থানান্তর করার কথা বলেন। তাছাড়াও শিক্ষাদান পদ্ধতির কার্যকরি উপায় সম্পর্কে আলোচনা করেন তিনি। নিউজিল্যাণ্ডের ওটাগো বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনার অভিজ্ঞতাও শেয়ার করেন অধ্যাপক মকবুল আহমেদ খান।

 

শিক্ষার্থীদের তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করা যাবে না বলে উল্লেখ করেন ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ। প্রশাসনিক নিয়ম-নীতি সম্পর্কে শিক্ষকদের বিভিন্ন তথ্য দেন মাননীয় রেজিস্ট্রার।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচিতি, অবস্থান ও নিয়মনীতি সম্পর্কে কথা বলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় প্রক্টর।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনিতক খাত সম্পর্কে ধারণা দেন মাননীয় ট্রেজারার।

এছাড়াও প্রশিক্ষণে যেসব বিষয় প্রাধান্য দেয়া হয়েছে সেগুলো হলো, শিক্ষক-শিক্ষার্থীর যোগাযোগ, প্রোক্টরিয়াল বিভাগের নানা দিক, অনলাইনে সঠিক পদ্ধতিতে ক্লাস পরিচালনা করা, শিক্ষাদানের পরিকল্পনা, পাঠদানের প্রস্তুতি, কো-অর্ডিনেশন বিভাগের সংঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা ও ইফেকটিভ প্রশ্ন তৈরির কৌশল।

উল্লেখ্য, নবনিযুক্ত শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের আয়োজন করেছিলো ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ-এর ফ্যাকাল্টি ডেভেলপমেন্ট অ্যাণ্ড ইভ্যালুয়েশন বিভাগ।